নেল আর্টের মাধ্যমে নিজের নখ-কে আপনি যে-কোনও রং, থিম, প্রকৃতি অথবা মুড-এর বিভিন্ন দৃশ্যে সাজিয়ে তুলতে পারেন। চাইলে ডার্ক অথবা হালকা রং-ও বেছে নিতে পারেন। নেল আর্ট-এর আগে নখ পরিষ্কার করা, নখের শেপ এবং কন্ডিশনিং-এর খেয়াল রাখা, একান্ত জরুরি। নখ-কে প্রথমে খাবার সোডা এবং লেবুর রস মিশ্রিত ঈষদুষ্ণ জলে খানিকক্ষণ ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর নরম কাপড় দিয়ে নখ শুকনো করে মুছে নিন। ফাইলার-এর সাহায্যে নখ-কে মনের মতো শেপ দিন যেমন গোলাকৃতি, ডিম্বাকৃতি অথবা চৗকো।

এবার নখ-কে সুরক্ষিত রাখতে নখে প্রাইমার লাগানোর পর বেস কোট লাগান। এর ফলে নখের রং হলুদ হবে না। বেস কোট-এর প্রথম পরত শুকিয়ে যাওয়ার পর, দ্বিতীয় কোট অ্যাপ্লাই করুন। পুরোটা শুকিয়ে গেলে অন্য ম্যাচিং নেল কালার দিয়ে ইচ্ছেমতন ডিজাইন আঁকুন। বাড়িতে সরু ব্রাশের সাহায্যে ডিজাইন আঁকতে পারেন আবার বাজারে নেল আর্টের জন্য নানা ধরনের টুল্স পাওয়া যায়, যেগুলি ব্যবহার করে নেল পেইন্ট করা খুবই সহজ।

কয়েকটি ট্রেন্ডি নেল আর্ট

বনজারা নেল আর্টঃ কালো নেলপলিশের উপর পছন্দ অনুযায়ী নানা আকারের স্টাড্‌স লাগিয়ে বানজারা নেল আর্ট নিজেই বানিয়ে নিতে পারবেন। কালো রঙের ম্যাট নেলপলিশ-এর একটা কোট লাগান এবং সেটা শুকিয়ে যেতে দিন। পরের পরতটি গাঢ় করে লাগান। নেলপেইন্ট শুকিয়ে যাওয়ার আগেই একটি চিমটের সাহায্যে স্টাড্‌স এক একটা করে তুলে নখের পেইন্টের উপর বসান এবং ডিজাইন ফুটিয়ে তুলুন। নেল পেইন্ট-এর উপর স্টাড্‌স পুরোপুরি সেট হয়ে গেলে, দীর্ঘ সময় পর্যন্ত নেল আর্ট টিকিয়ে রাখার জন্য নখের উপর ট্রান্সলুসেন্ট কোট লাগিয়ে নিন। মিড নাইট ব্লু আর গ্রে নেল এন্যামেল-এর উপরেও এই ধরনের প্যাটার্ন বানানো যেতে পারে।

স্মাইলি নেল আর্টঃ লেটেস্ট ট্রেন্ড-এ স্মাইলি নেল আর্ট ডিজাইন এখন ইন। আজকাল সমস্ত মেসেজের সঙ্গে স্মাইলি পাঠানো সকলের একটা অভ্যাস হয়ে গেছে। নখেও যদি সুন্দর একটা স্মাইলি বানানো যায় তাহলেও সকলের দৃষ্টি নখের প্রতি আকর্ষিত হবেই। এই ডিজাইনে সবগুলো নখেই আলাদা আলাদা রকম স্মাইলি বানানো হয়। কালো এবং হলুদ রং ছাড়াও এই ডিজাইনে সাদা, লাল এবং গোলাপি রং-ও ব্যবহার করা হয়। এর ফলে ডিজাইন আরও আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে।

চেক বোর্ড ফ্রেঞ্চ নেল্সঃ এই নেল আর্ট দেখতেও ভালো লাগে এবং এর কিউট লুক সব আকারের নখেই মানানসই লাগে।

পার্ল নেল আর্টঃ কেভিয়ার অর্থাৎ মাছের ডিমের মতো নেল আর্ট এখন আধুনিকাদের মধ্যে খুবই জনপ্রিয়। এই নেল আর্টের থ্রিডি এফেক্ট-এর জন্য এবং এতে পার্ল-এর ব্যবহার হয় বলে একে পার্ল নেল আর্ট বলা হয়। গ্লসি ব্ল্যাক নেলপলিশের উপর পার্ল বিড্‌স চেপে রেখে এই আর্ট বানানো হয়। পার্ল ভালো ভাবে সেট করে গেলে উপর দিয়ে গ্লসি টপ কোট লাগিয়ে নিন।

মার্বেল টাইল্সঃ এই নেল আর্টের ট্রেন্ড এখন ফ্যাশনে ইন। দেখতে সুন্দর লাগে এবং নখকে কমপ্লিট লুক দেয়।

নিউজপেপার নেল্স: এই নেল ডিজাইন দেখতে যেমন আকর্ষণীয় লাগে তেমনি সব রকম উৎসব-অনুষ্ঠান-অফিস সব জায়গার জন্যই অ্যাপ্রোপ্রিয়েট। হোয়াইট ব্রাইট বা লাইট কালারের নেলপলিশ লাগিয়ে শুকিয়ে নিন। এবার নখ, অ্যালকোহলের মধ্যে ২ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন এবং ভেজা নখের উপর খবরের কাগজ পেস্ট করুন। খানিকক্ষণ রেখে কাগজ সরিয়ে দিন। তৈরি আপনার নিউজপোর নেল আর্ট।

হাফ মুন: নখকে ক্লাসি এবং রয়্যাল লুক দিতে চাইলে হাফ মুন নেল আর্ট সিলেক্ট করাই যুক্তিযুক্ত। এই আর্ট-এ নখের নীচের অংশে ডিপ কালার দিয়ে হাফ মুন আঁকা হয় ও বাকি অংশ হালকা ম্যাট কালার ব্যবহার হয়।

পেটাল্স নেল আর্ট: ফুলের পাপড়ি শুকিয়ে প্রাকৃতিক ভাবে তৈরি জেল নেলপলিশ নখের সৗন্দর্য অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়। এখন এই নেল আর্টের ট্রেন্ড খুব চলছে কারণ এটি নখের সৗন্দর্য বাড়াবার সঙ্গে লুকটাও ন্যাচারাল রাখে।

লেসি নেল আর্ট: লেস লাগালে যেমন পোশাকের সৗন্দর্য বেড়ে যায়, তেমনি নখে লেস নেল আর্ট নখের সৗন্দর্য বাড়াতে সাহায্য করে। এই নেল আর্ট-টির জন্য পারফেক্ট ফিনিশিং খুব দরকার।

ব্রেসলেট নেল আর্ট: এর জন্য নখে নেলপলিশ লাগাবার পর ভিজে থাকা অবস্থাতেই জুয়েলারি লাগিয়ে সেট করতে দিতে হবে এবং দীর্ঘসময় টিকিয়ে রাখতে এর উপর ফাইনাল কোটিং দিতে হবে। এর ফলে নখে লাগানো অ্যাক্সেসরি সঠিক ভাবে সেট হবে। ব্রেসলেট লুকের জন্য অন্য রঙের সুতো নিয়ে অনেক টুকরোয় সুতোটিকে কাটুন যাতে টুকরোগুলি নখের উপর ঠিকমতো ফিট করে। খেয়াল রাখতে হবে, অ্যাক্সেসরি যেন নখের উপরেই থাকে।

ওয়ার্ড প্লে: যদি মনের ভাবনা নেল আর্টের মাধ্যমে ব্যক্ত করতে চান তাহলে ওয়ার্ড প্লে নেল আর্ট ব্যবহার করতে পারেন। এই নেল আর্ট বানানো খুবই সোজা এবং এটি খুবই ক্রিয়েটিভ একটি আর্ট।

হোলোগ্রাফিক কালার: ফ্ল্যাশি লুক, রং এবং স্টাইলিশ বলেই হোলোগ্রাফিক ক্রোম সকলেরই খুব পছন্দের। হোলোগ্রাফিক নেল্স-এর জন্য মার্কেটে অনেকরকম উপকরণ পাওয়া যায় যেমন হোলোগ্রাফিক সেলোফেন এবং ফয়েল পেপার।

গ্যালাক্সি নেল আর্ট: অ্যাস্ট্রোলজি যারা ভালোবাসেন তারা গ্যালাক্সি নেল আর্ট-ও খুবই পছন্দ করবেন। সিংগল অথবা কালারফুল মেটালিক নেলপলিশ লাগিয়ে উপরে জ্বলজ্বলে তারা লাগিয়ে ফিনিশিং টাচ দিতে পারেন এই ধরনের নেল আর্টে।

অ্যাকোয়ারিয়াল নেল আর্ট:  নেল আর্টে যদি অ্যাকোয়ারিয়ামের ছোঁয়া আনতে চান তাহলে এই নেল আর্ট বেছে নিতে পারেন। এই ডিজাইনে ব্লু ক্রিস্টাল খুব সুন্দর লাগে দেখতে। জলের আভাস আনার জন্য নুড কালার ব্যবহার করা সব থেকে ভালো। এর উপর তুলোর সাহায্যে গ্লিটার অ্যাপ্লাই করতে পারেন।

নেগেটিভ স্পেস: খুব কম নেল আর্ট এবং বেশিটা ব্ল্যাংক স্পেস দিয়ে খুব মজার নেল আর্ট বানানো সম্ভব। এই নেল আর্ট-কে নেগেটিভ স্পেস নেল আর্ট বলা হয়। এটি মেটালিক নেল কালারের উপর সবথেকে ভালো ফুটে ওঠে।                            ঞ্জ

ট্রেন্ডি নেল আর্টের জন্য জরুরি টিপ্স

> নেল আর্টের জন্য ন্যাচারাল এবং ব্রাইট কালারের নেলপলিশ থাকা একান্ত জরুরি। ন্যাচারাল কালারের নেলপলিশ লাগিয়ে তার উপর ব্রাইট কালারের ট্রাইঅ্যাংগল বানাতে পারেন

> আলাদা রকমের নেল আর্ট বানানোর জন্য স্কচ টেপ ব্যবহার করুন। এর সাহায্যে নখে নানা রকমের ডিজাইন তৈরি করতে পারবেন

> ন্যাচারাল কালারের অথবা পছন্দমতন নেলপেইন্ট লাগিয়ে তার উপর সেলোফেন পেপারের ছোটো ছোটো টুকরো আটকে দিন। শ্যাটার্ড গ্লাস নেলস ডিজাইন তৈরি হয়ে যাবে। ছোটো নখেও এই আর্ট দেখতে ভালো লাগবে

> আলাদা আলাদা নেল কালার্স ব্যবহার করা যায় নেল আর্টে এবং ইচ্ছেমতন ডিজাইনও তৈরি করা যায়

______

Tags:
COMMENT