শারদোৎসব এসে গেল৷ সাজগোজের কিছু সাজেশন এই সময়ে দারুণ কার্যকর হয়ে উঠতে পারে, যাতে উৎসবের আঙিনায় আপনি সবচেয়ে সুন্দর করে নিজেকে উপস্থাপিত করতে পারেন৷

এই সময়ে একটা ভ্যাপসা ভাব থাকে আবহাওয়ায়৷ তাই দিনের বেলা মেক-আপ করার ঝামেলা অনেক। দীর্ঘ সময় মুখে মেক-আপ থাকলে তা গলে সাজসজ্জা নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকে। কিন্তু রাতে আবার ব্যাপারটা উলটো। শিশির পড়ে৷ তাই তুলনামূলক ভাবে ঠান্ডা আমেজ৷  বাতাসে আর্দ্রতা কম থাকে বলে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। ত্বক শুষ্ক থাকার ফলে সাজ ভালো দেখায় না। এ জন্য সাজগোজের আগে কিছু বিষয় খেয়াল করা জরুরি, যাতে আপনার মেক-আপ হয়ে উঠতে পারে আরও নিখুঁত, আরও সুন্দর। সঠিকভাবে মেক-আপ করুন যাতে, উৎসবে থাকতে পারেন তরতাজা।

মেক-আপের আগে ত্বক পরিষ্কার করাটা সব সময়ই গুরুত্বপূর্ণ। স্বাভাবিক ত্বকের জন্য দুধ ও মধুর সঙ্গে চালের গুঁড়ো মিশিয়ে স্ক্রাবিং করা যেতে পারে। তৈলাক্ত ত্বক স্ক্রাব করতে টক দইয়ের সঙ্গে চালের গুঁড়ো মিশিয়ে নিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া আরও কিছু খুঁটিনাটি বিষয়ে নজর দেওয়া প্রয়োজন৷ রইল তারই পরামর্শ৷

  •  মেক-আপের আগে ত্বকের রং, টেক্সচার, ত্বকে কোনওরকম র‍্যা , চোখের নীচে কালো ছোপ আছে কিনা পরীক্ষা করে নেওয়া উচিত।
  •   কোন সময়ে মেক-আপ করছেন সেটা মাথায় রাখা জরুরি।বাইরে যাওয়ার জন্যই মেক-আপ। কিন্তু সময়-টা দিন অথবা রাত্রি, সেই অনুযায়ী মেক-আপ করুন।
  • বয়সটা অবশ্যই একটা ফ্যাক্টর। কারণ বিশেষ মেক-আপের সাহায্যে বয়স অনেকটাই কম দেখানো যায়।

মেকআপের এবিসি

  •  ক্লিনসিং মিল্ক দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন।
  •  এরপর মুখে বরফ ঘসে নিন।
  • টিস্যু পেপার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে, প্যানকেক দিয়ে মুখের বেস লাগান।
  • আইব্রো পেনসিল দিয়ে আইব্রো সেট করুন।
  • এবার ড্রেসের রং অনুযায়ী আইশ্যাডোর কালার বাছুন।
  • এরপর আইলাইনার আর মাস্কারা লাগান। আইলাইনার দুই রকমের হয়— লিকুইড বেস এবং কেক বেস।
  •  চোখের মেক-আপ শেষ করে, ঠোঁটের জন্যও ড্রেসের সঙ্গে মিলিয়ে লিপস্টিক কালার পছন্দ করুন।
  • গালে হালকা রঙের ব্লাশার লাগান এবং ব্রাশের সাহায্যে রং আরও হালকা করে গালের ভাঁজে ছড়িয়ে দিন।
  •  মেক-আপে ফিনিশিং টাচ দেবার জন্য ট্রানস্লুসেন্ট পাউডার ব্যবহার করুন।
  • মুখের সৌন্দর্য হাইলাইট করার জন্য এখন ক্রেজ হয়েছে শাইনিং মেক-আপ ব্যবহার করার। সব বয়েসের মহিলারাই এটা ট্রাই করতে পারেন। প্রধানত চোখ এবং ঠোঁটের শাইন বাড়ানোর জন্যই এই মেক-আপ ব্যবহৃত হয়। নিজের ব্যক্তিত্ব অনুযায়ী এবং আপনার বয়সে কী মানানসই, তার উপর নির্ভর করে মেক-আপ করা উচিত।
Tags:
COMMENT