তিনি আমেরিকা-প্রবাসী। বাঙালি হলেও,তাঁর জন্ম এবং বেড়ে ওঠা আমেরিকাতে। বেশিরভাগ-ই তিনি কথা বলেন ইংরেজিতে এবং তা অবশ্যই আমেরিকান অ্যাকসেন্ট-এ। তবে, মজার বিষয় হল, বাংলা কিংবা হিন্দিতে গাওয়া তাঁর গান শুনে বোঝার উপায় নেই যে, তিনি বাংলা কিংবা হিন্দিতে কথা বলেন না। যাইহোক, মা-বাবার হাত ধরে শিকড়ের সন্ধানে কিছুদিনের জন্য কলকাতা-র মাটিতে পা রেখেছেন তরুণী রোশনি বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এই ক্ষণিক সফরকে স্মরণীয় করে রাখতে তিনি গাইলেন গান। যদিও গান গাওয়া তাঁর পেশা নয়,প্যাশন। তবে বেশ সুরেলা কণ্ঠ। তাই রোশনি-র সঙ্গে ডুয়েট গাইতে রাজি হয়ে যান দুই তারকা শিল্পী কুমার শানু এবং নাকাশ আজিজ।

music launch by rituparna

 

সম্প্রতি রোশনি-র গাওয়া চারটি গান একইসঙ্গে লঞ্চ করা হয় কলকাতা-র স্প্রিং ক্লাবে। আর এই লঞ্চিং অনুষ্ঠানে রোশনি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তাঁর মা, গীতিকার দেবপ্রসাদ চক্রবর্তী, সুরকার অশোক ভদ্র, বাচিকশিল্পী দেবাশিস বসু, অভিনেত্রী দেবিকা মুখোপাধ্যায় এবং অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। এই উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা প্রদান ছাড়াও, রোশনি-র গানের ভূয়সী প্রশংসা করেন ঋতুপর্ণা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে না পারলেও, রোশনিকে শুভেচ্ছা-বার্তা পাঠিয়েছেন কুমার শানু এবং নাকাশ আজিজ।

যে চারটি গান গেয়েছেন রোশনি, তারমধ্যে রয়েছে দুটি বাংলা গান এবং দুটি হিন্দি গান। ‘যায় চোখ যতদূর’ এই গানটির রচয়িতা প্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায় এবং ‘মিষ্টি মিষ্টি কথা,মিষ্টি মিষ্টি সুর’ গানটির রচয়িতা দেবপ্রসাদ চক্রবর্তী। অশোক ভদ্র-র সুরে, এই দুটি গান একক কণ্ঠে গেয়েছেন রোশনি। অন্য দুটি গান হিন্দিতে। ‘বন যাও না মেরে হামসফর’ গানটিতে রোশনি-র সহশীল্পী কুমার শানু। এই গানটি লিখেছেন রাজীব দত্ত। আর ‘বিখারেঁ জো হাম’ এই হিন্দি গানটি রোশনি গেয়েছেন নাকাশ আজিজ-এর সঙ্গে। গানের রচয়িতা পাঞ্ছি জালোনভি। আর এই দুটি হিন্দি গানও সুরারোপ করেছেন অশোক ভদ্র।

music launch

গানগুলি শ্রোতাদের মন জয় করে নেবে,এমন-ই আশাপ্রকাশ করেছেন  গায়িকা রোশনি বন্দ্যোপাধ্যায়, সুরকার অশোক ভদ্র, দুই গায়ক কুমার শানু এবং নাকাশ আজিজ। প্রসঙ্গত জানানো হয়েছে, বাংলা এবং হিন্দিতে গাওয়া এই চারটি গান-ই পাওয়া যাবে ইউটিউব চ্যানেল-এ।

Tags:
COMMENT