আমার বয়স ৫৫ বছর। বাড়িতে স্বামী ছাড়াও, ছেলে আর ছেলের বউও রয়েছে। ২ বছর হল, ছেলের বিয়ে হয়েছে। বউও চাকরি করে। আমি চাই বউমা সন্তান ধারণের কথা ভাবুক এবং সেকথা ঠাট্টার ছলে ওদের ২-৩ বার বলেছি। কিন্তু বউমার বক্তব্য, ওরা দুজনেই এখন কেরিয়ারে মনোযোগ দিতে চায় সুতরাং বাচ্চার দায়িত্ব নিতে এখনই কেউ রাজি নয়। অনেকদিনই বউমা অফিস থেকে রাত করে বাড়ি ফেরে, মিটিং, পার্টি এসব লেগেই থাকে। কখনও ট্যাক্সিতে ফেরে তো কখনও অফিসেরই কোনও কলিগ-এর সঙ্গে। আমার এসব ভালো লাগে না। কিন্তু ছেলেকে কিছু বলতে গেলে, ও কথা কানে তোলে না। আবার কখনও বলে অফিসে কাজ করতে গেলে এগুলো জল-ভাত হয়ে যায়।বউমার বয়স ২৪ এবং আমার ছেলের বয়স ২৭। সময় থাকতে যদি ওরা বাচ্চার কথা না ভাবে তাহলে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাচ্চা হতে কোনও সমস্যা হবে না তো?

আপনার বউমার যা বয়স তাতে আরও ২-৩ বছর নিশ্চিন্তে কাটাতে পারবে। এখন সকলেই প্রায় প্রথমে কেরিয়ারে মনোযোগ দিতে চায় তারপর পরিবার পরিকল্পনায় মনোনিবেশ করে। আপনার ছেলে ও ছেলের বউও নিজেদের পেশায় জায়গা তৈরি করে নিয়ে অবশ্যই সন্তানের সম্পর্কেও ভাবনাচিন্তা শুরু করবে, নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন। সুতরাং আপনি শুধু শুধু চিন্তা করবেন না।

এছাড়া বউমার দেরি করে বাড়ি ফেরা নিয়ে আপনার মনে যে শঙ্কা রয়েছে সেটাও দূর করে ফেলুন। অফিসের মিটিং এবং কলিগদের সঙ্গে ফেরাটা অন্য ভাবে না নিলেই ভালো হয় কারণ মনে রাখবেন অফিসের বেশিরভাগ সময়টাই এদের সঙ্গে কাজ করেই কাটাতে হয়। সুতরাং অফিসে সকলের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ ব্যবহারই আপনার বউমাকে নিরাপদ রাখতে সাহায্য করবে। এই ব্যাপারে আপনার ছেলের মতামত একদম ঠিক। আপনিও ব্যাপারটাকে সহজ ভাবে নিন।

 

Tags:
COMMENT